প্রাথমিকে দিনে দুই শিফটে হবে দুই শ্রেণির ক্লাস

আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান শুরু হতে যাচ্ছে। কবে কোনদিন কোন বিষয়ের ক্লাস নেওয়া হবে সে বিষয়ে একটি রুটিন তৈরি করছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (ডিপিই)। রুটিনে দুই শিফটে দুই শ্রেণির ক্লাস নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। চলতি সপ্তাহে এটি চূড়ান্ত করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঠানো হবে বলে জানা গেছে। প্রস্তাবিত ক্লাস রুটিনে দেখা গেছে, করোনা পরিস্থিতির মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তিন ফুট দূরত্ব রেখে শিক্ষার্থীদের বসাতে হবে। সপ্তাহের শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার পঞ্চম শ্রেণির ক্লাস নেওয়া

মাত্র ৪টি ঘরোয়া উপায়ে ত্বকের সৌন্দর্য বাড়ান!

ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে কে না চায়। এর জন্য দামী ক্রিম, লোশন কিনেন অনেকেই। তবে অনেক সময় এ দামী ক্রিম কাজে আসে না বা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। তাই এবারের আয়োজনে আপনাদের জন্য কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি উল্লেখ করা হলো যা ত্বকের সৌন্দর্য বাড়িয়ে দিতে সাহা্য্য করবে। ১) হলুদের ব্যবহার অয়লি স্কিন অর্থাৎ তৈলাক্ত ত্বকের জন্য পিম্পল, কালচে দাগ, অ্যাকনে কত কী না হয়৷ তাই সবার আগে দরকার তৈলাক্ততা দূর করা৷ হলুদ বেটে বা গুড়িয়ে তাতে খানিকটা

এই বর্ষায় যেভাবে নখের যত্ন নেবেন! জেনেনিন বিস্তারিত

বর্ষার এই ঝরঝর বৃষ্টিতে আমরা চুল ও পায়ের খুব ভালোভাবে যত্ন নেওয়ার চেষ্ট করি। কিন্তু কখনই নখের কথা চিন্তা করি না। অথচ এ সময় ত্বকের সঙ্গে নখেরও বেশি ক্ষতি হয়ে যায়। অতিরিক্ত বৃষ্টিতে পা সবসময় ভিজে থাকার কারণে দেখা যায়, নখের কোণে ফাংগাল জাতীয় ঘা তৈরি হয় যা পরবর্তীতে ভয়ানক কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এছাড়া নখের চারপাশে চামড়া উঠতে থাকে এবং নখের রং পরিবর্তন হয়ে হলুদ রং ধারণ করে। মাঝে মাঝে নখের কোণ দিয়ে রক্ত-পুঁজও পড়তে

ব্রণের সমস্যা দূর করবে ড্রাগন ফলের কার্যকারিতা সম্পর্কে জেনেনিন!

বাইরের দেশ থেকে আমদানি করা ফল গুলির মধ্যে এটি অন্যতম। তবে এফল এখন বাংলাদেশেই আবাদ হয়। এই ফল খেলে আপনার স্বাস্থ্য নিয়ে অনেক চিন্তা দূর হবে। রসালো এ ফলটি হলো ড্রাগন ফল। ত্বকের উজ্জ্বল রঙ থেকে শুরু করে ওজন কমাতে কার্যকরী ড্রাগন ফল। এটি দক্ষিণ আমেরিকার আদিবাসীদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি ফল। তবে ভিয়েতনাম, থাইল্যান্ড এবং চীন হয়ে ফল পাওয়া যায় এবং সেখানেও বেশ প্রিয় ফল এটি। আপনি যদি ব্রণজনিত সমস্যায় ভুগে থাকেন বা আপনার

আইল্যাশের যত্ন এবং ঘন ও লম্বা দেখানোর কয়েকটা কার্যকরী টিপস!

নিজেকে সুন্দর করে দেখাতে কার না ভালো লাগে? কথায় আছে রূপের অহংকার করা ভালো নয়, কিন্তু কেউ দেখতে ভালো বলছে শুনলে অবশ্য গর্ব হয় সবারই। আর সত্যি বলতে মেয়েদের কাছে সাজগোজ বা নিজেকে সাজিয়ে তোলা সত্যিকারেই আগ্রহের বিষয়। এর মধ্যে মুখের মেকআপ অন্যতম। আর মুখের দিকে তাকালে ঝড়ের মাঝে সবার আগে চোখ যায় কারুর চোখের দিকে। নামি তারকা বা মডেলের যে কোনও ছবির দিকে তাকান, তার চোখ আপনার নজর কাড়বেই। নিজের চোখকে সবার সামনে আকর্ষক

ফ্রিজের দুর্গন্ধ যেন কিছুতেই যাচ্ছেনা । টুকটাক নিয়মেই সমাধান হবে এই সমস্যার

বাঙালির ঘরেই কেবল নয়, ফ্রিজ ঠাঁই পেয়েছে বাংলা কাব্যসাহিত্যেও। কবি শামসুর রাহমানের কবিতার চরণ দিয়েই শুরু করলাম। ফ্রিজে খাবার যেমন ভালো থাকে, তেমনি আবার ফ্রিজ থেকে উৎপত্তি হতে পারে উৎকট গন্ধেরও। তেমনটা যাতে না হয়,সে জন্যই এই আয়োজন। ফ্রিজের ‘নরমাল’ অংশের তাপমাত্রা ৩৫-৪০ ডিগ্রি ফারেনহাইট বা ৩.৫-৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসে রাখুন, আর ডিপ ফ্রিজের তাপমাত্রা রাখুন -১৭ (মাইনাস ১৭) ডিগ্রি সেলসিয়াস বা এর কাছাকাছি। ফ্রিজের খাবারের পরিমাণের ওপরও নির্ভর করে প্রয়োজনীয় তাপমাত্রা। কাঁচা খাবার (সবজি-ফলমূল) খোলা

আপনার মেকআপের জন্য সঠিক ফাউন্ডেনারটা বেছে নিন!

ছোট কোনও অনুষ্ঠানে যান বা বড় কোনও উৎসব, মেকআপ আপনার দরকার হবেই। নিজেকে যত্ন করে সাজিয়ে তোলার জন্যে পোশাকের সঙ্গে সঙ্গে মানানসই মেকআপ অনেকটাই গুরুত্বপূর্ণ। আর এই মেকআপের জন্যে বাজারে রয়েছে একের পর এক প্রসাধনী সামগ্রী। যার মধ্যে ফাউন্ডেশন অন্যতম। একটা নিখুঁত, নিটোল মেকআপের জন্যে ফাউন্ডেশনের গুরুত্ব নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে না। কিন্তু অনেক সময় নিজের ত্বক অনুযায়ী ঠিক ফাউন্ডেশন খুঁজে নেওয়া কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়। ত্বকের বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী ফাউন্ডেশন না নিলে, ভালো ব্র্যান্ডের দাম

অবাঞ্ছিত লোম দূর করুন সহজ ঘরোয়া উপায়ে!

শরীরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ থেকে অবাঞ্ছিত লোম দূর করতে অনেকে পার্লারে ছুটে যান। মহিলাদের এটা সবসময়ই প্রয়োজন হয়। তবে অনেকেরই হয়ত জানা নেই পার্লারে না গিয়ে বাড়িতেই খুব সহজেই এই অবাঞ্ছিত লোম দূর করা যায়। বর্তমানে শরীরের অবাঞ্ছিত লোম দূর করতে সবচেয়ে জনপ্রিয় পদ্ধতি হল ওয়াক্সিং। তবে পার্লারে গিয়ে এই পদ্ধতি খুব ব্যয়বহুল। সকলের পক্ষে হয়ত সবসময় এত টাকা দিয়ে ওয়াক্সিং করানো সম্ভব নাও হতে পারে। সেক্ষেত্রে বাড়িতে ‘বডি সুগারিং’ এর মাধ্যমে আপনারা শরীরের অবাঞ্ছিত

মসুরের ডাল ও দুধের ফেসপ্যাক মাত্র ১ বার ব্যবহারেই ত্বক হবে দুধের চেয়েও বেশি ফর্সা!

আদি কাল থেকে নারীরা এই ডালকে রূপচর্চার উপাদান হিসেবে ব্যবহার করছে। আর তাদের ত্বকও ছিলো দেখার মতন সুন্দর, উজ্জ্বল ও টান টান। কেননা তাদের ত্বকে ক্যামিকেল এর ছোঁয়া পায়নি। তারা প্রাকৃতিক উপায়ে তাদের রূপচর্চা করত। এই মসুর ডাল বাটনা ত্বকের অনেক সমস্যা সমাধান করত। মুখের অবাঞ্ছিত লোম দূর করা, মুখের উজ্জ্বলতা, ত্বক টান টান ইত্যাদি সকল কিছুই এই মসুর ডাল দিয়ে সমাধান হয়ে যেত। আর ত্বক পরিষ্কার থাকার ফলে মুখে ব্রণ ও উঠত না। আসুন

মাত্র এই দুটি উপায়ে খুশকি দূর হবে, বন্ধ হবে চুল পড়া; ১০০% গ্যারান্টি

গরম কালে মাথার তালুর তাপমাত্র বেড়ে যায় আর মাথার থালু ঘেমে ব্যক্টেরিয়া হয়ে মাথায় খুশকি হয় । গরমকালে তো আর গরম বন্ধ করা যাবে না কিন্তু আমরা যদি একটু সচেতন হই তাহলে এই গরমকালেও খুশকি মুক্ত থাকা যাবে এবং চুল পড়াও পুরুপরি দূর করা যাবে । বন্ধুরা, চলুন দেখে নিই , এই গরমে চুলকে খুশকি মুক্ত রাখার টিপসগুলোঃ 1। চুলের গোড়া মাথার স্ক্যাল্প মাসাজ করাঃ ১ বার এলোভেরা তেল ব্যবহার করে দেখুন ছোট চুল আকাশ