জেনে নিন মাথায় পেঁয়াজের রস ব্যবহার কার্যকারিতা?

আমরা সবাই জানি, পেঁয়াজের রস নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে, চুলপড়া কমায় এবং চুলের গোড়া শক্ত করে। কিন্তু অনেকেই জানি না কীভাবে মাথায় পেঁয়াজের রস ব্যবহার করবেন। এই রসের সঙ্গে অন্য প্রাকৃতিক উপাদান মেশালে এর কার্যকারিতা কয়েকগুণ বেড়ে যায়। কীভাবে মাথায় পেঁয়াজের রস ব্যবহার করবেন সে সম্বন্ধে কয়েকটি উপায়ের কথা বলা হয়েছে বোল্ডস্কাই ওয়েবসাইটের লাইফস্টাইল বিভাগে। আপনি চাইলে এই পরামর্শগুলো একবার পরখ করতে পারেন। ১. পেঁয়াজ কেটে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। এবার এর রস

চুল পড়া বন্ধ করে চুল গজাতে সাহায্য করবে এই পাতা জেনে নিন ব্যবহারবিধি!

চুল পড়া বন্ধ করা এবং নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে পেয়ারা পাতা। পেয়ারা ভিটামিন সি সমৃদ্ধ এই ফলটি ত্বকের জন্য বেশ উপকারী। শুধু পেয়ারা নয়, পেয়ারা গাছের পাতা চুলের জন্যও অনেক ভাল। পেয়ারা পাতা চুল পড়া বন্ধ করতে অনেক কার্যকরী। পেয়ারা পাতায় অ্যান্টি ইনফ্লামেটরী, অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, অ্যান্টি মাইক্রোবিয়াল উপাদান রয়েছে। এসব উপাদান মাথার তালু সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। এমনকি চুলের খুশকি হওয়া রোধ করতেও সাহায্য করে। ভিটামিন সি মাথার তালুতে ফলিক অ্যাসিডের ভারসাম্য বজায় রেখে

ঈদে ফ্রিজে মাংস রাখার সময় যেসব ভুল করবেন না!

কোরবানির প’শুর মাংস তাজা ও টাটকা রাখাটা বেশ গু’রুত্বপূর্ণ। আর সেটা তখনই সম্ভব হয় যখন মাংসটা সঠিকভাবে সংরক্ষণ করা যাবে। কোরবানির মাংস বাসায় আসার পর খোলা অব’স্থায় অনেকক্ষণ ফে’লে না রেখে ৪-৫ ঘণ্টার মাঝেই তা সংরক্ষণ ক’রতে হবে। তবে সেটা এমনভাবে ক’রতে হবে, যেন এর স্বাদ ও পুষ্টিগুণ অক্ষুণ্ণ থাকে। পশু জ’বাই করার স’ঙ্গে স’ঙ্গেই মাংস ফ্রিজে না রাখাই ভালো। কারণ এরপর অন্ত’ত চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা মাংস শক্ত থাকে। মাংস একটু নরম হওয়ার পর

রাসায়নিক রং নয় বরং চা ব্যবহারেই পাকা চুল হবে কালো!

চুল কালো করার বেশিরভাগ প্রসাধনীতেই থাকে রাসায়নিক রং। তাই প্রাকৃতিক পদ্ধতিতে সাদা চুল করতে চাইলে বেছে নিতে পারেন চা পাতা। এই চায়ের চায়ের পাতায় আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা কালো করার পাশাপাশি উজ্জ্বল ও সুন্দর করে চুল। এছাড়া অসময়ে চুল সাদা হয়ে যাওয়ার সমস্যা হলে ব্যবহার করতে পারেন কালো চায়ের লিকার। লালচে ধরনের চুলেও কালচে করবে ব্ল্যাক টি। চা দিয়ে চুল কালো করার পদ্ধতি নতুন নয়। প্রতিষ্ঠিত ও প্রচলিত কয়েকটি পন্থা এখানে দেওয়া হল বিভিন্ন সাজসজ্জা-বিষয়ক ওয়েবসাইটে

করোনায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যু, নমুনা পরীক্ষার রেকর্ড, জেনে নিন সর্বশেষ আপডে

মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ২২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার ২৭৮ জনে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন ১২ হাজার ২৩৬ জন। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১০ লাখ ৭১ হাজার ৭৭৪ জনে। বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ

লকডাউন শিথিল হলেও যেসবে নিষেধাজ্ঞা

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে শর্ত সাপেক্ষে চলমান কঠোর বিধিনিষেধ তুলে নিয়েছে সরকার। করোনার ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মধ্যেও ঈদের কথা বিবেচনায় নিয়ে আজ (১৪ জুলাই) দিবাগত রাত ১২টার পর থেকে টানা ৮ দিন বিধিনিষেধ শিথিল করা হয়েছে। তবে নতুন কিছু নির্দেশনা দিয়ে বুধবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে পরিপত্র জারি করা হয়েছে।এতে মাস্ক পরিধান নিশ্চিত ও জনসমাগম এড়িয়ে চলার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে চিঠির মাধ্যমে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে তথ্য অধিদপ্তরের বিবরণীতে বলা হয়েছে। পর্যটন কেন্দ্র,

চুলের যত্নে তিলের তেলের ব্যবহার জানলে আপনিও আবাক হবেন!

চুলের যত্নে তিলের তেল বেশ সমাদৃত। এটি চুলের গভীরে গিয়ে পুষ্টি জোগায়, চুলকে ঘন কালো, রেশমি ও সিল্কি করতে বেশ কার্যকর। তিলের তেলের উপকার বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণিত। এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ই, বি কমপ্লেক্স ও খনিজ যেমন— ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস, প্রোটিন সমৃদ্ধ। মাথার ত্বকের চুলকানি কমায় অনেক সময় মাথার ত্বকের সংক্রমণের কারণে মাথায় চুলকানির সমস্যা হয়। তিলের তেল সহজেই এই সংক্রমণ দূর করে। এই তেল হালকা গরম করে মাথার ত্বকের ম্যাসাজ করুন। দেখবেন, ধীরে ধীরে মাথার

১৫ টাকার যে ফলটি খেলে ১০ দিনের মধ্যে ডায়াবেটিস চিরতরে নির্মূল। জেনে নিন সেই ফলের নাম…

ডায়াবেটিস চিরতরে নির্মূল – ডায়াবেটিস বা বহুমূত্র রো’গে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা দিনে দিনে বাড়ছে। এ রোগের কারণে দেখা দেয় অনেক ধরনের সমস্যা। শুধু বড়দেরই এ রোগ হয়,তা নয়। ছোটদেরও ডায়াবেটিস হতে পারে। ডায়াবেটিসের ফলে রক্তে চিনি বা শকর্রার উপস্থিতিজনিত অসামঞ্জস্যতা দেখা দেয়।’ এর ফলে দেহ রো’গ প্রতি’রোধ ক্ষ’মতা হারায়। ডায়াবেটিস চিরতরে নির্মূল – আমরা যদি নিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন করতে পারি তাহলে এই রোগকেও নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ করা সম্ভব। সেই সাথে প্রবন্ধের শেষে বর্ণিত ভেষজ ঔষধগুলো সেবন

গরুর মাংস খেয়ে বদহজম, পেট ফাঁপা ও কোষ্ঠকাঠিন্য হলে করণীয়

কোরবানির ঈদ মানেই গরুর মাংসের নানান পদ। মুখরোচক হওয়ায় খাওয়াও হয় পরিমাণে বেশি। তবে পরিমাণে বেশি গরুর মাংস খাওয়ায় বিভিন্ন শারীরিক সমস্যায়ও ভুগতে হয়। তাই অবশ্যই ঈদে গরুর মাংস খাওয়ার সময় সতর্কতা অবলম্বন করুন। ঠিক যতটুকু খেলে আপনি সুস্থ থাকবেন ঠিক ততটুকুই খাওয়ার চেষ্টা করুন। তবে কোনোভাবে যদি অতিরিক্ত গরুর মাংস খেয়ে বদহজম, পেটে ফাঁপা কিংবা কোষ্ঠকাঠিন্যে ভুগেন, তাহলে জেনে নিন আপনার করণীয়- কয়েক কোয়া কাঁচা রসুন চিবিয়ে খান। পেট ফাঁপা কমে যাবে। মাংস খাওয়ার

খাবারে কিসের লজ্জা বলেই নিজের বিয়েতে গপ গপ করে খাচ্ছে নতুন বউ

আজকাল দিনে ভালো হোক বা মন্দ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাই’রাল হতে খুব একটা বেশি সময় লাগে না। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে আম’রা নানান জিনিসই এক লহমায় চোখের সামনে দেখতে পারি। এই সোশ্যাল মিডিয়া না থাকলে অনেক কিছুই অজানা থেকে যেত আমাদের কাছে। আজকাল দিনে বাচ্চা থেকে বুড়ো সকলের চোখ থেকে সোশ্যাল মিডিয়ার উপর। ৮ থেকে ৮০ সোশ্যাল মিডিয়া সকলে ভালোবাসি এটাই যেন মূল মন্ত্র হয়ে উঠেছে আজকালদিনে। আর তাই মানুষের জীবনে সোশ্যাল মিডিয়ার অবদানকে কোনো ভাবেই অস্বীকার