১৮ মাস পর ক্লাসে গিয়ে সব কিছুই মনে হলো নতুন: দীঘি

টানা ১৭ মাস ২৬ দিন বন্ধের পর আজ রোববার খুলেছে দেশের সব স্কুল ও কলেজ। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে চলছে উৎসবের আমেজ। শিক্ষক ও কর্মচারীরা শিক্ষার্থীদের বরণ করে নিয়েছেন।

চিত্রনায়িকা প্রার্থনা ফারদিন দীঘিও এদিন কলেজে যান। কলেজে গিয়ে তার মনে হয়েছে সবই নতুন। দীর্ঘদিন পর ক্লাসের বেঞ্চে বসে অন্য রকম এক অনুভূতি কাজ করেছে তার।

দীঘি বলেন, আজ যখন ক্লাসে যাওয়ার জন্য তৈরি হচ্ছিলাম। ঠিক করতে পারছিলাম না, কোনটা রেখে কোনটা করবো! এতদিন পর ক্লাসে গিয়ে সব নতুন লেগেছে। তবে ভালো লাগছিল বেশ। সবাই স্বাস্থ্যবিধি মানছেন। কলেজে ঢোকার আগে হাত ধুলাম। হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করলাম। আর আমরা গ্যাপ রেখে ক্লাসে বসেছি। সব মিলিয়ে ভালো লাগছে এজন্য যে সেফটি মানা হচ্ছে আবার ক্লাসও হচ্ছে।

দীঘি জানান, কলেজ খুলে দেওয়ার ঘোষণার পর থেকে বন্ধুরা তার সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। সবাই আবদার করেন, তাকে কলেজে আসতেই হবে। দীঘি বলেন, ‘বন্ধুরা অনুরোধ না করলেও আমি কলেজে আসতাম। কত দিন পর দেখা, কলেজেরে আঙ্গিনায় হাঁটা! দারুণ একটা ব্যাপার।’

উল্লেখ্য, স্ট্যামফোর্ড কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী দীঘি। মাঝে পড়াশোনার জন্য অভিনয় থেকে দূরে থাকলেও এখন নিয়মিত। শিশুশিল্পী হিসেবে জনপ্রিয়তা পাওয়ার পর নায়িকার খাতায় নাম লিখেয়েছেন তিনি। এরইমধ্যে ‘তুমি আছো তুমি নেই’ ও ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়াভাই’ নামে তার দুটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *