রোদে শুকানোর ঝামেলা নেই, নতুন পদ্ধতিতে কাঁচা আম দিয়ে মজাদার ‘আমসত্ত্ব’ তৈরির রেসিপি, ভিডিও সহ!

আমরা সবাই না হলেও বেশিরভাগ মানুষই আমরা কাঁচা আমের আমসত্ত্ব খেতে পছন্দ করি কিন্তু এই পছন্দের মাঝে সবচেয়ে কষ্টদায়ক জিনিস হচ্ছে আমসত্ত্ব রোদে শুকানো।

আমসত্ত্ব রোদে শুকানো নিয়ে অনেক ঝামেলা পোহাতে হয়। পড়তে হয় নানা বিপাকে । কিন্তু আজকের এই রেসিপিটি সম্পূর্ণ আলাদা রোদে শুকানোর ঝামেলা ছাড়াই কাঁচা আমের আমসত্ত্ব তৈরি করে দেখাবো আপনাদের।

উপাদান সমূহঃ কাঁচা আম, শুকনো লাল মরিচ, লবণ, দারচিনি, তেজপাতা, চিনি।

রন্ধন প্রণালী প্রথমে কাঁচা আম গুলোকে ছাল ছাড়িয়ে নিয়ে পানি দিয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে।এরপর টুকরো টুকরো করে নিয়ে পানিতে ভিজিয়ে রেখে পরিষ্কার করে ধুয়ে ফেলতে হবে। এবার চুলা জ্বালিয়ে চুলের মধ্যে কড়াই দিতে হবে। কড়াই গরম হলে এর মধ্যে দিতে হবে শুকনো লাল মরিচ। এতে শুকনো লাল মরিচ ভেজে নিতে হবে।

মরিচগুলো ভাজা হয়ে গেলে মরিচ গুলোকে বেটে নিতে হবে। তারপর আবার আবার কড়াই এর মধ্যে পানি দিতে হবে। পানিগুলো গরম হয়ে গেলে এর মধ্যে কেটে রাখা কাঁচা আম গুলো ছেড়ে দিতে হবে। কড়াইয়ে ঢাকনা দিয়ে এগুলো কি সেদ্ধ করে নিতে হবে। আম গুলো সেদ্ধ হলে সে আম গুলোকে স্টিলের ছোট জগ দিয়ে কেচে নিতে হবে।

আম গুলো ভালোভাবে থেঁতলে থেঁতলে মিশিয়ে নিতে হবে। তার তারপর এটিকে চুলা থেকে নামিয়ে ঠান্ডা করে নিতে হবে। ঠান্ডা হওয়ার পর আম গুলোকে একটি জালিতে নিয়ে এর কাধ ছাড়িয়ে নিতে হবে। এরপর জ্বালানো চুলার মধ্যে কড়াই দিয়ে সেই কড়াই এর মধ্যে আমের কাথটি ঢেলে দিতে হবে। এর মধ্যে একে একে লাল মরিচ গুঁড়ো, লবণ,দারচিনি ,তেজপাতা ও চিনি দিয়ে সবসময় নাড়তে হবে।

ধরে নাড়তে হবে যাতে করার তলায় আমের কাঁধটি লেগে না যায়। কাঁধটি গাঢ় হয়ে গেলে থালার মধ্যে সরিষার তেল মাখিয়ে নামিয়ে নিতে হবে। কাঁধটির লিয়ার এমনভাবে দিতে হবে না বেশি মোটা না বেশি চিকন। এরপর এটিকে চুলা নিচে দিয়ে রাখতে হবে যতক্ষন না এটি আমসত্ব এ পরিনত না হয় । চাইলে আপনারা এই আমসত্ব টিকে রোদেও শুকাতে পারেন।

আশাকরি আপনাদের এই রেসিপিটি ভালো লাগবে। অবশ্যই বাসায় এই রেসিপিটি তৈরি করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *