ভুল সময়ে শ্যাম্পু ব্যবহার চুল পড়ার কারণ নয় তো?

চুল পড়ার সমস্যায় কমবেশি সবাই ভোগেন। নারী কিংবা পুরুষ যেই হোক না কেন সৌন্দর্য বাড়াতে চুলের গুরুত্ব অনেক বেশি। তবে চুল রক্ষ হওয়া, ঝরে পড়া, আগা ফাটাসহ নানা সমস্যা প্রায়ই দেখা দেয়। এজন্য অবশ্য বিভিন্ন ধরনের পণ্য ব্যবহার করছেন। তাতেও আশানুরূপ ফল মিলছে না। পাশাপাশি চুলের যত্নে বা চুল পরিষ্কার করতে ব্যবহার করছেন নামীদামি ব্র্যান্ডের শ্যাম্পু। তবে চুলে শ্যাম্পু করার সঠিক সময় জানেন কি? ভুল সময়ে শ্যাম্পু করা বা চুল ধোয়ার কারণে চুল পড়তে পারে।

জে’নে নিন, ব্রণ সারবে ঘরোয়া ক্রিমেই

ব্রণের সমস্যায় ভোগেন না এমন মানুষ কমই আছেন। নারী হোক বা পুরুষ, টিনেজ হোক কিংবা প্রাপ্ত বয়স্ক। সবারই কমবেশি এই সমস্যায় পড়তে দেখা যায়। খাবার বা ঘুমের অনিয়ম, ভাজাপোড়া খাবার, হরমোনের সমস্যার কারণে ত্বকে ব্রণ দেখা দিতে পারে। ব্রণের সমস্যা দূর করতে কত কিছুই না ব্যবহার করে থাকেন। নানা ধরণের কেমিকেল পণ্য থেকে শুরু করে ঘরোয়া উপায় কোনো কিছুতেই কাজ হচ্ছে না। তাহলে ব্যবহার করতে পারেন ঘরে তৈরি করা এই ক্রিম। এতে আপনার ব্রণের সঙ্গে

দাঁত ব্রাশ করার সঠিক নিয়ম না জানলেই বিপদ

ঘুম থেকে জেগে সবাই সর্বপ্রথম দাঁত পরিষ্কার করেন। আর দাঁত পরিষ্কারের জন্য ব্রাশ একটি প্রয়োজনীয় জিনিস। নিশ্চয়ই জানেন, প্রতিদিন দুইবেলা দাঁত ব্রাশ করা জরুরি। তবে ব্রাশ করার সঠিক নিয়ম যদি জানা না থাকে, তবে দাঁতের ফাঁকে জীবাণু আটকে থাকবেই। পরবর্তীতে তা দাঁতের মারাত্মক ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে। এই কারণে প্রতিদিন ব্রাশ করার পরও অনেকেই দাঁতের সমস্যা ভোগেন। বিশেষজ্ঞরা বলেন, দাঁত ব্রাশ করারও কিছু নিয়ম রয়েছে। চলুন জেনে নেয়া যাক দাঁত ব্রাশ করার সঠিক নিয়মগুলো- ভালো

তৈলাক্ত ত্বক উজ্জ্বল করবে জবা ফুলের ফেস প্যাক

সারাবছর ত্বকের যত্ন নিলেও গরমে একটু বেশিই সময় দিতে হয়। তারপরও ত্বক তৈলাক্ত হয়ে পড়ে। দেখা দেয় ব্রণ, র‍্যাশসহ নানা সমস্যা। এই সময় ত্বক নিষ্প্রাণ হয়ে পড়ে, সেই সঙ্গে উজ্জ্বলতাও হারায়। ত্বকের তৈলাক্তভাব দূর করে উজ্জ্বলতা বাড়াতে ব্যবহার করতে পারেন জবা ফুলের প্যাক। নারী কিংবা পুরুষ, যেকোনো বয়সের মানুষই ব্যবহার করতে পারবেন এই ফেস প্যাক। ত্বকের যত্নে আপনি ঘরোয়া পদ্ধতিতে জবা ফুল ব্যবহার করতে পারেন। জবা ফুল সাধারণত চুলের সৌন্দর্য এবং খুশকি থেকে মুক্তি পেতে

পাঁচ মিনিটেই তৈরি করুন মুচমুচে কাঁচকলার চিপস

ছোট কিংবা বড় সবারই পছন্দের তালিকায় থাকে মুচমুচে চিপস। তবে ছোটরা চিপস খেতে একটু বেশি ভালোবাসে। তবে শিশুদের স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে অনেকেই বাজারে কেনা চিপস খেতে নিষেধ করেন। কারণ এই চিপসে দেয়া বিভিন্ন কেমিকেল শিশুদের নানা ধরণের রোগে আক্রান্ত করতে পারে। এমন পরিস্থিতিতে আপনি চাইলে ঘরেই তৈরি করতে পারেন সুস্বাদু কাঁচকলার চিপস। যা খেতেও সুস্বাদু এবং স্বাস্থ্যকরও। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক কীভাবে তৈরি করবেন কাঁচকলার চিপস- উপকরণ: কাঁচকলা ২টি, লবণ স্বাদ অনুযায়ী, হলুদ

নখ ভেঙে যাওয়া রোধে যা করবেন

হাতের সৌন্দর্য বাড়াতে নখের ভূমিকা অপরিসীম। তাইতো এর যত্নে অনেকেই নানা পদ্ধতি ব্যবহার করে থাকেন। এক্ষেত্রে নারীরা নখ বড় রাখতেও পছন্দ করেন। তবে অনেকেরই নখ ভেঙ্গে যাওয়ার সমস্যা থাকে। ফলে ইচ্ছা থাকা সত্যেও নখ বড় রাখতে পারেন না। তবে যারা নখ ভেঙে যাওয়ার সমস্যায় ভুগছেন, তাদের জন্য রয়েছে চমৎকার সমাধান। চলুন জেনে নেয়া যাক নখ ভেঙে যাওয়া রোধে করণীয়- নখ ভালো ও দৃঢ় রাখার ক্ষেত্রে খাদ্যাভ্যাসে পুষ্টিকর খাবার রাখুন ও পাশাপাশি নখের যত্ন নিন। নখ

বাড়িতে বসেই বানিয়ে ফেলুন দোকানের মত পারফেক্ট মিষ্টি দই!

বাড়িতে কোনও অনুষ্ঠান হলে মিষ্টি দই না হলে ঠিক জমে না। তবে বাজারের দইয়ে যথেষ্ট কড়া মিষ্টি থাকে। বাড়িতে এই দই বানালে প্রয়োজন মতো মিষ্টির পরিমাণ বাড়িয়ে-কমিয়েও নিতে পারবেন। তবে বাড়িতে টক দই যত সহজে পাতা যায়, মিষ্টি দই বানানো ততটাও সহজ নয়। বানাতে গেলে জানতে হবে প্রণালী। মাত্র তিনটি উপকরণই যথেষ্ট। তা দিয়েই ঘরে তৈরি করা যায় মিষ্টি দই। স্বাদের হবে না কোনও হেরফের। রইল সহজ রেসিপির হদিস। উপকরণ ‏দুধ: ১ লিটার, ‏গুঁড়া দুধ:

পাঁউরুটি দিয়ে খুব সহজেই বানিয়ে ফেলুন ভিন্ন স্বাদের লোভনীয় ‘ব্রেড মালাই’

মিষ্টি খেতে ভালোবাসে না এমন মানুষ খুব কমই পাওয়া যাবে। তবে নতুন ধরনের এই মিষ্টি স্বাদে এনে দিবে তা। আর ভিন্ন স্বাদের এই খাবারটির নাম ব্রেড মালাই। এটি তৈরি করতে যেমন কম উপকরণ লাগে তেমনি সময়ও লাগে কম। আর খেতেও খুব ভালো। বাসার ছোট থেকে বড় সবাই খেতে খুবই পছন্দ করবে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক ব্রেড মালাই তৈরির রেসিপিটি- উপকরণ: ১০০ গ্রাম নরম মাওয়া, পরিমান মতো সামান্য হলুদ ফুড কালার, চার স্লাইস ব্রেড। মালাই

খুশকি ও চুল পড়া বন্ধে মেনে চলুন রূপবিশেষজ্ঞের পরামর্শ

চুলের সৌন্দর্য নষ্ট হওয়ার পেছনে খুশকি একটি বড় কারণ। এছাড়া স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রেও চুলের খুশকি একটা বড় সমস্যা। খুশকি চুল পড়ার জন্যও দায়ী। তাই চুল পড়া বন্ধ করার জন্য চুল খুশকিমুক্ত করা জরুরি। খুশকির ফলে অতিরিক্ত চুল ঝরে যাওয়া, চুল রুক্ষ হয়ে যাওয়া এবং মাথার ত্বকে নানা রকমের সংক্রমণ হতে পারে।এছাড়া মাত্রাতিরিক্ত দূষণের ফলে চুল পড়া ও খুশকির সমস্যা হতে পারে। খুশকি ও চুল পড়া বন্ধের বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন বিন্দিয়া বিউটি পার্লারের স্বত্বাধিকারী এবং বিউটি কনসালট্যান্ট

খুশকি ও চুল পড়া বন্ধে মেনে চলুন রূপবিশেষজ্ঞের পরামর্শ

চুলের সৌন্দর্য নষ্ট হওয়ার পেছনে খুশকি একটি বড় কারণ। এছাড়া স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রেও চুলের খুশকি একটা বড় সমস্যা। খুশকি চুল পড়ার জন্যও দায়ী। তাই চুল পড়া বন্ধ করার জন্য চুল খুশকিমুক্ত করা জরুরি। খুশকির ফলে অতিরিক্ত চুল ঝরে যাওয়া, চুল রুক্ষ হয়ে যাওয়া এবং মাথার ত্বকে নানা রকমের সংক্রমণ হতে পারে।এছাড়া মাত্রাতিরিক্ত দূষণের ফলে চুল পড়া ও খুশকির সমস্যা হতে পারে। খুশকি ও চুল পড়া বন্ধের বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন বিন্দিয়া বিউটি পার্লারের স্বত্বাধিকারী এবং বিউটি কনসালট্যান্ট